সোমবার

২৪ জুন ২০২৪


১০ আষাঢ় ১৪৩১,

১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

প্রথম বাংলাদেশি পরিচালক নিয়োগ দিলো বৃটিশ এশিয়ান ট্রাস্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক || বিজনেস ইনসাইডার

প্রকাশিত: ১৭:২১, ২২ মে ২০২৪  
প্রথম বাংলাদেশি পরিচালক নিয়োগ দিলো বৃটিশ এশিয়ান ট্রাস্ট

সংগৃহিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: বৃটিশ এশিয়ান ট্রাস্ট তাদের আকর্ষণীয় উন্নয়ন পরিকল্পনাসমূহ এগিয়ে নেয়ার জন্য প্রথম বাংলাদেশি পরিচালক হিসেবে ইশরাত ওয়ারিসকে নিয়োগ দিয়েছে। বৃটেনের মহামান্য রাজা তৃতীয় চার্লস নেতৃস্থানীয় বৃটিশ এশিয়ান ব্যবসায়ীদেরকে সঙ্গে নিয়ে ২০০৭ সালে বৃটিশ এশিয়ান ট্রাস্ট প্রতিষ্ঠা করেন। এখন পর্যন্ত এই ট্রাস্ট দক্ষিণ এশিয়া জুড়ে ১২ মিলিয়নেরও বেশি মানুষকে সহায়তা করেছে এবং বর্তমানে তারা বাংলাদেশে বৃহত্তর উন্নয়ন ও এর প্রভাব নিশ্চিত করতে অঙ্গীকারাবদ্ধ। 

ইশরাত এক দশকেরও বেশি সময় ধরে জলবায়ু প্রযুক্তি ও উন্নয়নমূলক খাতে দীর্ঘস্থায়ী সামাজিক প্রভাব সৃষ্টিকারী বিভিন্ন কমিউনিটি-ভিত্তিক প্রোগ্রামে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। ইতিপূর্বে তিনি বিশ্বব্যাংক, ব্র্যাক এবং এসওএল শেয়ার নামক প্রতিষ্ঠানসমূহে কাজ করেছেন।

ইশরাতকে নির্দেশনা ও পরামর্শ দিয়ে সহায়তা করবেন বৃটিশ এশিয়ান ট্রাস্টের বাংলাদেশি উপদেষ্টা পরিষদ, যার নেতৃত্বে আছেন বেক্সিমকোর গ্রুপ সিইও শায়ান এফ রহমান এবং উপদেষ্টা মণ্ডলীতে আরও রয়েছেন ফারুক সোবহান, রুনা খান ও এলথেম কবির।

ট্রাস্টের বাংলাদেশ উপদেষ্টা পরিষদের চেয়ারম্যান শায়ান এফ রহমান বলেন, “আমাদের প্রথম পরিচালক হিসেবে ইশরাতকে নিয়োগ দিতে পেরে আমরা বেশ আনন্দিত। তার সমৃদ্ধ অভিজ্ঞতার ভাণ্ডার থেকে তিনি বাংলাদেশে আমাদের কর্মসূচিগুলোর উল্লেখযোগ্য প্রবৃদ্ধি অর্জনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন।”

ইশরাত জানান, “বৃটিশ এশিয়ান ট্রাস্টে যোগ দিয়ে এবং বাংলাদেশে আমাদের প্রচেষ্টার নেতৃত্ব দেয়ার সুযোগ পেয়ে আমি রোমাঞ্চিত। সামাজিক এবং পরিবেশগত দীর্ঘস্থায়ী প্রভাব সৃষ্টির লক্ষ্যে বিভিন্ন উদ্ভাবনী উপায় নিয়ে আমাদের কর্মীদল ও উপদেষ্টা পরিষদের সাথে কাজ করার জন্য আমি খুবই উদ্বেলিত।"

বৃটিশ এশিয়ান ট্রাস্ট

ব্রিটিশ এশিয়ান ট্রাস্ট এমন এক দক্ষিণ এশিয়ার স্বপ্ন দেখে যা সকলের জন্যই সাফল্যজনক ও ন্যায্য। আমাদের কর্মকাণ্ডসমূহ উচ্চাকাঙ্ক্ষী ও টেকসই সমাধানকে সমর্থন দেয় যা প্রান্তিক পর্যায়ের জনগণকে তাদের পূর্ণ সম্ভাবনা অর্জনে সক্ষম করে তোলে। ২০০৭ সালে কাজ শুরুর পর থেকে আমরা বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান এবং শ্রীলঙ্কার প্রায় ১২ মিলিয়ন মানুষের জীবনে ইতিবাচক প্রভাব ফেলতে সক্ষম হয়েছি। আমরা আমাদের সমর্থকদের সাথে মিলে এমন এক দক্ষিণ এশিয়ার জন্য কাজ করছি যা হবে সবার জন্য মঙ্গলকর।

Walton

সর্বশেষ