United Commercial Bank (UCB)

মঙ্গলবার

০৯ আগস্ট ২০২২


২৫ শ্রাবণ ১৪২৯,

০৯ মুহররম ১৪৪৪

ইউক্রেনের শপিং মলে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ১৮ জন নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || বিজনেস ইনসাইডার

প্রকাশিত: ১৫:৩০, ২৮ জুন ২০২২  
ইউক্রেনের শপিং মলে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ১৮ জন নিহত

ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা (২৮ জুন): ইউক্রেনের মধ্যাঞ্চলীয় ক্রিমানচাক নগরীর একটি জনাকীর্ণ শপিং মলে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় কমপক্ষে ১৮ জন নিহত এবং ৫৯ জন আহত হয়েছে। সোমবারের এ হামলার পরিপ্রেক্ষিতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ জরুরি বৈঠকের ডাক দিয়েছে। খবর বিবিসি, এএফপি, আল-জাজিরা।

ইউক্রেনের রাষ্ট্রীয় জরুরি সেবা বিভাগ সোমবারের ক্ষেপনাস্ত্র হামলায় ১৮ জনের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছে। পোলটাভা অঞ্চলের সামরিক প্রশাসনের প্রধান দিমিত্র লুনিনও মৃত্যুর এ সংখ্যা নিশ্চিত করেছেন। তবে হামলার স্থানে এখনও উদ্ধার তৎপরতা চলছে, তাই মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে বাড়ে বলে জানানো হয়েছে। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে জরুরি বিভাগের ৪৪০ জন উদ্ধারকর্মী সেখানে কাজ করছেন। ক্ষেপনাস্ত্র হামলার শিকার ব্যক্তিদের মানষিক ভাবে সহযোগিতার লক্ষ্যে সেখানে ১৪জন মনোবিদও কাজ করছেন। রাশিয়ার ক্ষেপনাস্ত্র হামলা চালানোর সময় ওই শপিং মলে প্রায় ১,০০০ মানুষ কেনাকাটা করছিলেন বলে জানা গেছে।

টেলিগ্রামে পোস্ট করা সান্ধ্যকালীন ভাষণে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি রাশিয়াকে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সন্ত্রাসী সংগঠন বলে উল্লেখ করে বলেন, ‘ক্রিমানচাকের কেন্দ্রস্থলে ওই শপিং মলে রাশিয়ার আজকের হামলা ইউরোপীয় ইতিহাসে ভয়াবহ সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডগুলোর অন্যতম।’

জরুরি সার্ভিসের প্রধান সার্গি ক্রাক বলেন, ওই শপিং মলে সোমবারের ক্রেপণাস্ত্র হামলার পর সেখানে প্রধান কর্ম ছিল উদ্ধার কাজ, ধ্বংসস্তুপ সরানো ও আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা।’

টেলিগ্রামে ক্রাক বলেন, ‘এখন পর্যন্ত আমরা এ ভয়াবহ হামলার ঘটনায় ১৬ জন নিহত ও ৫৯ জন আহত হওয়ার খবর পেয়েছি। এ ঘটনায় তথ্য হাল নাগাদ করা হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘সংশ্লিষ্ট সকল গ্রুপ গুরুত্ব সহকারে কাজ করছে। সেখানে সার্বক্ষণিকভাবে উদ্ধার কাজ চলছে।’

এর আগে জেলানস্কি এ নগরীতে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার সময় ওই শপিং মলে এক হাজারেরও বেশি বেসামরিক নাগরিক থাকার কথা জানিয়েছিলেন। এদিকে যুদ্ধ শুরু হওয়ার আগে ওই নগরীতে জনসংখ্যা ছিল দুই লাখ ২০ হাজার।

ফেসবুকে দেওয়া বার্তায় জেলানস্কি লিখেছেন, ‘শপিং মলটিতে আগুন জ্বলছে। উদ্ধারকর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে যাচ্ছে। সেখানে এখন যে ভয়াবহ পরিস্থিতি বিরাজ করছে, তাতে হতাহতের সংখ্যা কল্পনা করা অসম্ভব।’

পশ্চিমা নেতৃবৃন্দ এ ক্ষেপনাস্ত্র হামলার নিন্দা জানিয়েছেন। তারা একে অসুস্থ, নিষ্ঠুর এবং ভয়াবহ হামলা বলে উল্লেখ করে রাশিয়াকে এর জন্য জবাবদিহি করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন।

এদিকে সোমবার রাশিয়ার এ ক্ষেপনাস্ত্র হামলার প্রেক্ষাপটে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ আজ এক জরুরি বৈঠক আহ্বান করেছে। জাতিসংঘ জানিয়েছে আজকের এ বৈঠকে ক্রিমানচাকের শপিংমলে হামলার বিষয়টিই হবে মূল ইস্যু।

এদিকে জি৭ নেতৃবৃন্দ জার্মানিতে শীর্ষ সম্মেলনের সমাপনি বৈঠকে রাশিয়ার এ ক্ষেপনাস্ত্র হামলাকে যুদ্ধাপরাধ বলে অভিহিত করেছেন।  

 

Nagad

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়