সোমবার

২২ জুলাই ২০২৪


৭ শ্রাবণ ১৪৩১,

১৫ মুহররম ১৪৪৬

সড়কে চাপ আছে, রাস্তার জন্য যানজট নেই: ওবায়দুল কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক || বিজনেস ইনসাইডার

প্রকাশিত: ১৪:১১, ১৪ জুন ২০২৪  
সড়কে চাপ আছে, রাস্তার জন্য যানজট নেই: ওবায়দুল কাদের

সংগৃহিত

নিজস্ব প্রতিবেদক : এবারের ঈদযাত্রা স্বস্তিকর হয়েছে দাবি করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সড়কে চাপ আছে কিন্তু রাস্তার কোনো যানজট হচ্ছে না। আজ শুক্রবার (১৪ জুন) ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ঈদযাত্রা স্বস্তিকর হয়েছে। গত কয়েকবছর ধরেই মানুষ স্বস্তি পাচ্ছে। এবার আমরা আরও মনোযোগী হচ্ছি দুর্ঘটনা কমাতে। সড়কে চাপ আছে, কিন্তু যানজট নেই। সড়কে চাপ থাকবেই। রাস্তার জন্য কোনো যানজট হচ্ছে না। সর্বকালের সবচেয়ে ভালো সড়ক এখন। পশুর হাট, গাড়ি রাস্তায় চাপ সৃষ্টি করে।

কোরবানি ঈদের সময় পশুর হাট চাপ সৃষ্টি করে । পশুবাহী গাড়ি, যত্রতত্র পশুর হাট যেন রাস্তায় দূর্ভোগ সৃষ্টি করতে না পারে সেদিকে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন ওয়ায়দুল কাদের। তিনি বলেন, বৃষ্টি হলে দুর্ভোগ এড়ানো কঠিন।

বাজেট বাস্তবতা ভারসাম্যমূলক বাজেট উল্লেখ করে সেতুমন্ত্রী বলেন, আজকে আমাদের দেশে বাজেট সেশন চলছে। এই বাজেট নিয়ে আলোচনা আছে, সমালোচনা আছে। পৃথিবীর অন্যান্য দেশেও বাজেট আছে। এই বছর ৬৪ দেশে নির্বাচন হওয়ার কথা। আমাদের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতেও নির্বাচন শেষ হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বাজেট নিয়ে আলোচনা, সমালোচনা আছে, মূল্যস্ফীতি নিয়ে সরকারে উদ্বেগ আছে। কিন্তু সরকার কোন কিছুই গোপন করছে না। মূল্যস্ফীতি নিয়ে ইউরোপও ভুগছে। তাদের মূল্যস্ফীতি ১০ শতাংশ। আশপাশের দেশগুলোতেও মূল্যস্ফীতি অনেক বেশি। দ্রব্যমূল্য নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন হই কিন্তু অন্যদেশের গুলোও দেখা দরকার।

কাদের বলেন, আমাদের ভোটার টার্নআউট নিয়ে প্রশ্ন তোলা হচ্ছে। ইউরোপীয় পার্লামেন্ট নির্বাচনে ভোটার টার্নআউট অনেক কম। বিরোধী দলের ভোট বর্জনের পরও বাংলাদেশে ভোটার উপস্থিতি ৪২ শতাংশ হয়েছে। এটা কম নয়।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগে ভুল ত্রুটি আছে। কিন্তু ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ। দূর্নীতিবাজ কারো বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার সাহস দেখায়নি বিএনপি। আওয়ামী লীগের সময় ঝিনাদহের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিমের হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদককেও রিম্যান্ডে আনা হয়েছে। অভিযুক্ত হলে ছাড় দেওয়া হবে না। কারণ, দুদক, বিচার বিভাগ স্বাধীন।

এসময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম, আফজাল হোসেন, সুজিত রায় নন্দী, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ প্রমুখ।

Walton

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়