বৃহস্পতিবার

২০ জুন ২০২৪


৬ আষাঢ় ১৪৩১,

১৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

জনগণ বিএনপির আন্দোলন সমর্থন করে না: কামরুল ইসলাম

নিজস্ব প্রতিবেদক || বিজনেস ইনসাইডার

প্রকাশিত: ১২:১৪, ২১ মার্চ ২০২৩  
জনগণ বিএনপির আন্দোলন সমর্থন করে না: কামরুল ইসলাম

সংগৃহীত

নিজস্ব প্রতিবেদক: আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেছেন, মানুষের কষ্ট নিয়ে বিএনপি আন্দোলন করে, কিন্তু জনগণ সেই আন্দোলন সমর্থন করে না। জনগণ বিশ্বাস করে, এই কষ্ট থেকে একমাত্র শেখ হাসিনাই তাদের উত্তরণ করতে পারে। আজ মঙ্গলবার (২১ মার্চ) সকালে কেরানীগঞ্জের সোনাকান্দা উচ্চ বিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

বিএনপি জনগণকে ভালোবাসে না উল্লেখ করে কামরুল ইসলাম বলেন, তাদের (বিএনপি) মানুষের ভোটের দরকার হয় না। তারা কীভাবে ষড়যন্ত্র করে ক্ষমতায় আসবে সেটার জন্য বিদেশিদের কাছে ধরনা দেয়। কিন্তু আমাদের মানুষের ভোট দরকার, আওয়ামী লীগেরও জনগণের ভোট দরকার।

মানবাধিকার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ওদের দেশের নির্বাচন দেখে না। ট্রাম্পের নির্বাচন যতটা বিতর্কিত ও প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে এমন বিতর্কিত ও প্রশ্নবিদ্ধ নির্বাচন হয়নি। তারা আবার বলে, বাংলাদেশের নির্বাচন সুষ্ঠু হয়নি।

বাংলাদেশ আগে কেমন ছিল এখন কেমন আছে প্রশ্ন রেখে কামরুল ইসলাম বলেন, করোনা মহামারি কাটিয়ে উঠে ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে এখন একটু সাময়িক সমস্যা হচ্ছে। সব দেশেই সমস্যা হচ্ছে, যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি ব্যাংক বন্ধ হয়ে গেছে।

বিএনপিকে মিছিল-মিটিং করতে না দেয়ার অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি বলেন, ২০০১ সালের নির্বাচনে বিএনপি ক্ষমতায় এসে আওয়ামী লিগের নেতাকর্মীদের ফুটপাতের সামনে দাঁড়াতে দেইনি। আর বিএনপি গত পরশুদিনও পল্টনে মিটিং করছে।

২০১৮ সালের নির্বাচনে বিএনপিকে মিছিল-মিটিং করতে না দেয়ায় মানবাধিকার লঙ্ঘন হয়েছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, জিয়াউর রহমানের হ্যাঁ বা না ভোটে মানবাধিকার লঙ্ঘন হয়নি? ৮৬, ৮৮, ৯৬ সালের ভোটে মানবাধিকার লঙ্ঘন হয়নি?

সরকারের বিরোধিতার নামে বিএনপি রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে বিরোধিতা করছে জানিয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর এ সদস্য বলেন, এরা বলে (বিএনপি) বাংলাদেশের থেকে পাকিস্তান ভালো ছিল। যে পাকিস্তান এখন দেউলিয়া। আমরা যখন বলি স্মার্ট বাংলাদেশ, তখন এরা বলে গো ব্যাক বাংলাদেশ।

অপশক্তির বিরুদ্ধে যারা দেশের বদনাম করে, রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে, বাংলাদেশের বিরুদ্ধে বিদেশিদের খেপিয়ে তুলে হস্তক্ষেপ করার সুযোগ করে দেয়, তাদের আগামী নির্বাচনে প্রত্যাখ্যান করার আহ্বান জানান তিনি।

বিএনপিকে নির্বাচনে আসার অনুরোধ করে তিনি বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারে যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই, পরিষ্কার কথা। নির্বাচন হবে সংবিধান মেনে। নির্বাচনকালীন সময়ে নেতৃত্ব দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিএনপি সে নির্বাচনে তাদের শেষ অস্তিত্ব নিয়ে অংশগ্রহণ করবে। নির্বাচন কমিশনকে কোনোভাবে প্রভাবিত করা হবে না। এরপরেও যদি বিএনপি নির্বাচনে না আসে, তাহলে তারা অস্তিত্ব সংকটে পড়বে।

Walton

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়