United Commercial Bank (UCB)

মঙ্গলবার

২৯ নভেম্বর ২০২২


১৫ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯,

০৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

রক্ত আর হত্যা ছাড়া বিএনপি দেশের মানুষকে কিছু দিতে পারেনি: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক || বিজনেস ইনসাইডার

প্রকাশিত: ১৫:৪২, ২৪ নভেম্বর ২০২২   আপডেট: ১৬:২৫, ২৪ নভেম্বর ২০২২
রক্ত আর হত্যা ছাড়া বিএনপি দেশের মানুষকে কিছু দিতে পারেনি: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি: সংগৃহীত

যশোর (২৪ নভেম্বর): প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেছেন, রক্ত আর হত্যা ছাড়া বিএনপি দেশের মানুষকে কিছু দিতে পারেনি।

‘বিএনপি-জামাত কী দিয়েছে?’ প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, দিয়েছে অস্ত্র, দিয়েছে খুন। এই যশোরে শামসুর রহমান, মুকুলকে হত্যা করা হয়েছে। খুলনায় মঞ্জুরুল ইমাম, মানিক শাহ, বালু, সাংবাদিকদের একে একে হত্যা করা হয়েছে। শুধু রক্ত আর হত্যা ছাড়া বিএনপি তো আর কিছু দিতে পারেনি দেশের মানুষকে! নিজেরা লুটপাট করেছে। নিজেরা মানুষের অর্থ পাচার করেছে।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে যশোরের শামস-উল হুদা স্টেডিয়ামে আয়োজিত জনসভায় তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, মানুষের ভাগ্য নিয়ে ছিনিমিনি খেলেছে। মানুষের মুখের গ্রাস কেড়ে নিয়ে নিজেদের উদরপূর্তি করেছে।

তিনি বলেন, জিয়া যখন মারা যায়, বলল কিচ্ছু থুয়ে যায়নি। ভাঙা স্যুটকেস, ছেঁড়া গেঞ্জি। সেই ছেঁড়া গেঞ্জি হয়ে গেল ফেঞ্চ শিফন আর ভাঙা বাকশো হয়ে গেল জাদুর বাক্সো, যা দিয়ে কোকো-তারেক হাজার হাজার কোটি টাকার মালিক হয়েছে।

এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, দেশের টাকা বিদেশে পাচার করেছে আর পাচার করেছে বলেই তারা শাস্তি পেয়েছে। আজকে সাজাপ্রাপ্ত আসামি তারেক জিয়া, বলেন শেখ হাসিনা।

শেখ হাসিনা বলেন, অস্ত্র চোরাকারবারি করতে গিয়ে তারেক জিয়া ধরা খেয়েছে। ১০ ট্রাক অস্ত্র মামলায় তার সাজা হয়েছে। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা করে আমাকেসহ আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের হত্যা করতে চেয়েছিল। বার বার এ ধরনের মৃত্যুর মুখোমুখি হয়েছি। আর খালেদা জিয়া জনগণের অর্থ শুধু না, এতিমের অর্থ মেরে, জিয়া অরফানেজের অর্থ মেরে সে-ও আজ সাজাপ্রাপ্ত। আর সাজাপ্রাপ্ত যে দলের নেতা, সে দল জনগণকে কী দেবে বলেন?

তিনি বলেন, তারা কিছুই দিতে পারে না, তারা শুধু মানুষের রক্ত শুষে খেতে পারে। এটাই হল বাস্তবতা। বাংলাদেশ যেন পৃথিবীর বুকে সম্মান নিয়ে চলতে পারে, আজকে বাংলাদেশকে আমরা সেইভাবে উন্নয়ন করেছি। 

প্রদানমন্ত্রী বলেন, ২০০৮ সালে নির্বাচনী ইশতেহারে ঘোষণা দিয়েছিলাম, রূপকল্প ২০২১ এর মধ্যে বাংলাদেশকে আমরা উন্নত করবো। আজকে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত করেছি, বাংলাদেশ আজ উন্নয়নশীল দেশ। বাংলাদেশের রাস্তাঘাট, পুল-ব্রিজ আমরা করে দিচ্ছি।

তিনি বলেন, রিজার্ভের কোনো সমস্যা নেই। ব্যাংকে কোনো টাকা নেই, এটা মিথ্যা কথা। আমদানি ও রফতানি বৃদ্ধি পেয়েছে। 

Nagad

সর্বশেষ