United Commercial Bank (UCB)

বুধবার

২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২


১৩ আশ্বিন ১৪২৯,

০১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

ঢাকায় চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক || বিজনেস ইনসাইডার

প্রকাশিত: ১৭:৫০, ৬ আগস্ট ২০২২   আপডেট: ১৭:৫৯, ৬ আগস্ট ২০২২
ঢাকায় চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী

চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছালে তাকে স্বাগত জানান কৃষি মন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা (০৬ আগস্ট):  দুই দিনের সফরে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করেছেন চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই। তাইওয়ান প্রণালিতে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির মধ্যে আজ শনিবার বিকেল পাঁচটার দিকে বিমানবন্দরে পৌঁছান তিনি।

চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছালে তাকে স্বাগত জানান কৃষি মন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, ৭ আগস্ট বাংলাদেশ ও চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মধ্যে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। দ্বিপক্ষীয় বৈঠকটি ছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন ওয়াং ই। এর পরে ৭ আগস্ট তিনি ঢাকা ছেড়ে যাবেন।

কূটনৈতিক সূত্রগুলো বলছে, চীনের আগ্রহের পরিপ্রেক্ষিতেই এ সফর অনুষ্ঠিত হচ্ছে। চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ সফরে কী বার্তা নিয়ে আসছেন— এ প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহিরয়ার আলম সাংবাদিকদের বলেছেন, আসার পর বোঝা যাবে।

এদিকে, চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সম্মানে আজ নৈশ ভোজের আয়োজন করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী, আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এ সফরে পাঁচ থেকে সাতটি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) স্বাক্ষর ও নবায়নের প্রস্তুতি চলছে বলে জানা গেছে।

চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সফরের বিষয়ে সম্প্রতি পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন বলেন, চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের বহুমাত্রিক সম্পর্ক রয়েছে। তার সফরে রোহিঙ্গা ইস্যু, চীনের সহায়তায় বিভিন্ন চলমান ও ভবিষ্যৎ প্রকল্প নিয়ে আলোচনা হতে পারে।

প্রসঙ্গত, এ সফরে আলোচনায় তাইওয়ান প্রণালি ও বৈশ্বিক পরিস্থিতি গুরুত্ব পেতে পারে বলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা ইঙ্গিত দিয়েছেন। ঢাকায় চীনের রাষ্ট্রদূত লি জিমিং গত বৃহস্পতিবার তাইওয়ান ইস্যুতে এক বিবৃতিতে ‘এক চীন’ নীতির প্রতি বাংলাদেশের সমর্থন প্রত্যাশা করেন। একই সঙ্গে তিনি আঞ্চলিক শান্তি, স্থিতিশীলতা ও সমৃদ্ধি রক্ষায় চীনের সঙ্গে বাংলাদেশ কাজ করবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন। এরপর বাংলাদেশ ‘এক চীন’ নীতির প্রতি সমর্থন পুনর্ব্যক্ত করার পাশাপাশি সব পক্ষকে সংযত থাকার আহ্বান জানিয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ সফরে তাইওয়ান প্রণালির পরিস্থিতি তুললে বাংলাদেশ তার অবস্থান তুলে ধরতে পারে।

সর্বশেষ

Islami Bank Bangladesh Ltd

পাঠকপ্রিয়