সোমবার

২৩ মে ২০২২


৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯,

২০ শাওয়াল ১৪৪৩

নাসিক নির্বাচনে ভোট গ্রহণ শেষ, গণনা চলছে

নিজস্ব প্রতিবেদক || বিজনেস ইনসাইডার

প্রকাশিত: ১৭:১৭, ১৬ জানুয়ারি ২০২২  
নাসিক নির্বাচনে ভোট গ্রহণ শেষ, গণনা চলছে

ছবি: বিজনেস ইনসাইডার বাংলাদেশ

ঢাকা (১৬ জানুয়ারি): নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। এখন ভোট গণনা চলছে। তবে ফলাফল কখন পাওয়া যাবে সে বিষয়ে নিশ্চিত কিছু জানা যায়নি।

রিটার্নিং কর্মকর্তা মাহফুজা আক্তার বিজনেস ইনসাইডার বাংলাদশেকে জানান, অত্যন্ত শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট শেষ হয়েছে। কোথাও কোনো গণ্ডগোল হয়নি।

কখন ফলাফল পাওয়া যেতে পারে এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এ বিষয়ে এখন কিছুই বলা সম্ভব না।

রবিবার সকাল ৮টা থেকে নারায়ণগঞ্জ সিটির ১৯২টি কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) এ ভোট নেওয়া হয়েছে। ইভিএম এ ভোট দিতে গিয়ে বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে বয়স্ক ভোটাররা কিছুটা বিপাকে পড়লেও শেষ পর্যন্ত  শান্তিপূর্ণভাবেই ভোট শেষ হয়েছে। বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরাহমীন এ ভোটে নারী ও তরুণ ভোটারদের উপস্থিতি ছিলো উল্লেখ করার মতো।

শুধু নারায়ণগঞ্জবাসীই নন, এই ভোটের ফলাফলের দিকে রয়েছে সারাদেশের মানুষের দৃষ্টি। এ নির্বাচনে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হচ্ছে নৌকা প্রতীকে সেলিনা হায়াত আইভী এবং স্বতন্ত্র হিসেবে হাতি প্রতীকে বিএনপি নেতা তৈমুর আলম খন্দকারের মধ্যে।

ভোটের আগে জাতীয় পার্টির স্থানীয় নেতারা তৈমুর আলম খন্দকারের নির্বাচনী প্রচারণায় নামার পর সন্দেহের তীরে বিদ্ধ হয়েছিলেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমান। এমন পরিস্থিতিতে ঢাকা থেকে কেন্দ্রীয় নেতারা ছুটে গিয়েছিলেন নারায়ণগঞ্জে। এরপর এক সংবাদ সম্মেলন করে শামীম ওসমান আনুষ্ঠানিকভাবে সেলিনা হায়াত আইভীর পক্ষে প্রচারণার ঘোষণা দিয়েছিলেন।

রবিবার বিকেল সাড়ে তিনটায় আদর্শ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দেন এ সংসদ সদস্য। ইভিএম এ ভোট দিয়ে বেশ উচ্ছ্বাসও প্রকাশ করেন শামীম ওসমান। তিনি বলেন, ‘আমার বউ যখন ‘কবুল’ বলেছিল, সেরকম আনন্দ হল ইভিএমে ভোট দিয়ে।’

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ২৭টি ওয়ার্ডে রয়েছে ১৯২টি ভোটকেন্দ্র। মেয়র পদে সাতজন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৪৮ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৩৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন নারায়ণগঞ্জ সিটির তৃতীয় এই নির্বাচনে।

২০১১ সালে এ সিটির নির্বাচনে ভোটের হার ছিল ৬৯ শতাংশ; তবে ২০১৬ সালে তা কমে ৬২ দশমিক ৩৩ শতাংশে দাঁড়ায়। করোনাভাইরাস সংক্রমণের মধ্যে এবার ৫ লাখ ১৭ হাজারের ভোটারের মধ্যে কত শতাংশ ভোট দিয়েছেন সেই হিসেবে পাওয়া যাবে গণনার পর।

 

UCB

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়