United Commercial Bank (UCB)

মঙ্গলবার

০৯ আগস্ট ২০২২


২৫ শ্রাবণ ১৪২৯,

০৯ মুহররম ১৪৪৪

কয়েক মাস ধরে মুরাদের পরিবর্তন লক্ষ্য করেছি: তথ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক || বিজনেস ইনসাইডার

প্রকাশিত: ১৬:৫২, ৭ ডিসেম্বর ২০২১  
কয়েক মাস ধরে মুরাদের পরিবর্তন লক্ষ্য করেছি: তথ্যমন্ত্রী

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, ফাইল ফটো

ঢাকা (০৭ ডিসেম্বর): কয়েক মাস ধরে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের মধ্যে কিছুটা পরিবর্তন লক্ষ্য করেছেন বলে জানিয়েছেন একই মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এক প্রশ্নের জবাবে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এ কথা জানান।

তিনি বলেন, প্রতিমন্ত্রী হিসেবে ডা. মুরাদ হাসান আমাকে সবসময় সহযোগিতা করে এসেছেন। কয়েক মাস ধরে তার মধ্যে কিছুটা পরিবর্তন লক্ষ্য করেছি। তার কিছু বক্তব্য ঘটনা আসলে সরকার ও দলকে বিব্রত করেছে। সেই কারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে পদত্যাগ করার জন্য বলেছেন। সে অনুযায়ী তার সাইন করা পদত্যাগপত্র একটু আগে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে নিয়ে গেছে তার পিআরও। তার সবগুলো ঘটনা, পুরো বিষয়টি আসলে দুঃখজনক।

এসময় উপস্থিত সাংবাদিকরা কি কি পরিবর্তন দেখেছিলেন জানতে চাইলে তথ্যমন্ত্রী বলেন, দেখুন, আমার কাছে মনে হয়েছে তিনি আগে যে রকম ছিলেন। গত তিন মাস ধরে একটা পরিবর্তন আমার কাছে মনে হচ্ছিল। বিভিন্ন ঘটনা ও কর্মকান্ডে আমরা সেটি মনে হচ্ছিল।

দু-একটা পরিবর্তনের কথা সাংবাদিকরা জানতে চাইলে তিনি বলেন, তিনি আগে যে রকম ছিলেন সেটা থেকে ভিন্ন মনে হয়েছে আমার। এটা আমার পারসোনাল অবজারভেশন, এটা তো আমি সবিস্তারে বলতে পারবো না। কারণ এটা অনুভবের বিষয় সেটা আমি এখানে সেভাবে প্রকাশ করতে পারবো না।

ডা. মুরাদ সংসদ সদস্য আছেন, দলেও তার পদ আছে। সেটি কীভাবে দেখছেন- এ বিষয়ে হাছান মাহমুদ বলেন, তিনি জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক, সেই বিষয়ে জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগ বলতে পারবে, তারাই সিদ্ধান্ত নেবেন। সংবিধানে আছে কারও নৈতিক স্খলন হলে প্রধানমন্ত্রী যে কাউকে পদত্যাগ করতে বলতে পারেন। দলের বিষয়টি দল বৈঠক করে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে। তিনি যেহেতু জেলা আওয়ামী লীগের কর্মকর্তা জেলা আওয়ামী লীগ সেই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে। এই মুহূর্তে এর বেশি কিছু বলা সমীচীন হবে বলে আমি মনে করি না।

কয়েক মাস ধরে পরিবর্তন লক্ষ্য করেছেন, এতদিন তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি কেন- এমন প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, তিনি বেশ কিছু বক্তব্য দিয়েছেন, দলের সঙ্গে পরামর্শ না করেই দিয়েছেন। যেগুলোর কারণে আমাদেরও প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হয়েছে।

মুরাদ হাসান বলেছেন তিনি প্রধানমন্ত্রীকে জানিয়েই বক্তব্য দেন- এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে হাছান মাহমুদ বলেন, আমার জানা নেই। আমি জানি না প্রধানমন্ত্রীকে এ সমস্ত কথা বলেছেন। আমি প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী হিসেবেও কাজ করেছি। দল বিব্রত হয়, সরকার বিব্রত হয় এই ধরনের কথা ও কর্মকান্ড প্রধানমন্ত্রী কখনও কারো জন্য অ্যালাউ করেন না।
 

Nagad

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়