United Commercial Bank (UCB)

রোববার

০৩ জুলাই ২০২২


১৯ আষাঢ় ১৪২৯,

০২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

কাল প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা, প্রতি পদে ২৯ জন প্রার্থী

নিজস্ব প্রতিবেদক || বিজনেস ইনসাইডার

প্রকাশিত: ১৬:৩৮, ২১ এপ্রিল ২০২২   আপডেট: ১৬:৪০, ২১ এপ্রিল ২০২২
কাল প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা, প্রতি পদে ২৯ জন প্রার্থী

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন, পিআইডি

ঢাকা (২১ এপ্রিল): সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের শেষ ধাপের পরীক্ষা পিছিয়েছে। এই পরীক্ষা ২৭ মে’র পরিবর্তে আগামী ৩রা জুন অনুষ্ঠিত হবে। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান তুহিন স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে উল্লেখ করা হয়, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সমূহে সহকারী শিক্ষক নিয়োগে প্রথম ধাপের পরীক্ষা আগামীকাল (২২ এপ্রিল) অনুষ্ঠিত হবে। দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষা হবে ২০ মে এবং শেষ ধাপের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল ২৭ মে, কিন্তু এখন তা হবে ৩ জুন।

আসন্ন প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় একটি আসনের বিপরীতে ২৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্ধন্ধিতা করবে। মোট ৪৫ হাজার আসনের বিপরীতে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৩ লাখ ৯ হাজার ৪৬১ জন। এছাড়া পরীক্ষা কেন্দ্রের সংখ্যা ১৮১১টি। প্রথম পর্যায়ে ২২ টি জেলার মধ্যে ১৪ জেলার সকল  এবং ৮ জেলার আংশিক পরীক্ষা নেয়া হবে। পরীক্ষা সকাল ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে, বৃহস্পতিবার দুপুরে মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন। 

সংবাদ সম্মেলনে প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন বলেন, মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষার জন্য প্রয়োজন মানসম্মত শিক্ষক। তাই বর্তমান সরকার মানসম্মত শিক্ষক নিয়োগের প্রতি গুরুত্বারোপ করেছে। এবারে যে সকল শিক্ষক নিয়োগপ্রাপ্ত হবেন তাঁরা আগামী প্রায় ৩৫ বছর প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শ্রেণি পাঠদান পরিচালনায় নিয়োজিত থাকবেন। তাঁদের হাতেই গড়ে উঠবে ২০৪১ সালের উন্নত বাংলাদেশের কারিগর। তাই শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা অপরিহার্য। অন্যথায় মানসম্মত শিক্ষক পাওয়া যাবেনা এবং তাঁদের হাতে গড়ে উঠা প্রজন্মের কাছ থেকে কাঙ্খিত সেবা পাওয়া যাবে না।

তিনি বলেন, ইতোমধ্যে সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা পরিচালনার জন্য প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর হতে সহকারী শিক্ষক নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা পরিচালনা নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। প্রতিটি দায়িত্ব সুষ্ঠু ও সুচারুভাবে পালনের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী জানান, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ কার্যক্রম নিয়োগ বিধি অনুসরণপূর্বক সম্পূর্ণ স্বচ্ছতা ও নিরপেক্ষতার সাথে সম্পন্ন করা হয়। প্রার্থীদের রোল নম্বর, আসন বিন্যাস, প্রশ্নপত্র প্রেরণ ও মুদ্রণ, উত্তরপত্র মূল্যায়ন, ফলাফল প্রস্তুতসহ যাবতীয় কাজ সফটওয়্যারের মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয়ভাবে করা হয়। এক্ষেত্রে কোন ধরণের অবৈধ হস্তক্ষেপের সুযোগ নেই। কেউ অর্থের বিনিময়ে চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখালে তাকে নিকটস্থ থানায় সোপর্দ করা অথবা থানা বা গোয়েন্দা সংস্থাকে অবহিত করার জন্য তিনি দেশবাসির প্রতি অনুরোধ জানান।

লিখিত পরীক্ষার ফলাফল ও মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যম আগামী জুলাই ২০২২ এর মধ্যে যোগ্য প্রার্থীদের নিয়োগদানে প্রতিমন্ত্রী সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রণালয়ের সচিব  আমিনুল ইসলাম খান, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক  আলমগীর মুহম্মদ মনসুরুল আলম উপস্থিত ছিলেন।
 

Nagad

সর্বশেষ

Islami Bank Bangladesh Ltd

পাঠকপ্রিয়