বুধবার

২৯ মে ২০২৪


১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১,

২০ জ্বিলকদ ১৪৪৫

পদ্মা ব্যাংকের এমডির পদত্যাগ

নিজস্ব প্রতিবেদক || বিজনেস ইনসাইডার

প্রকাশিত: ১৪:১৯, ২৪ এপ্রিল ২০২৪  
পদ্মা ব্যাংকের এমডির পদত্যাগ

সংগৃহিত

নিজস্ব প্রতিবেদক: িশ‌রীয়াহভিত্তিক পরিচালিত বেসরকারি এক্সিম ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত হতে যাওয়া চতুর্থ প্রজন্মের পদ্মা ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) তারেক রিয়াজ খান পদত্যাগ করেছেন। শিগগিরই তিনি এনআরবি ব্যাংকের এমডি হিসেবে যোগ দেবেন বলে জানা গেছে।

গত ফেব্রুয়ারি মাসে এনআরবি ব্যাংকের এমডি পদ থেকে পদত্যাগ করেন মামুন মাহমুদ শাহ। এরপর থেকে ব্যাংকটি ভারপ্রাপ্ত এমডি দিয়ে চলছিল।

তারেক রিয়াজ খান ২০২২ সালের মার্চ মাসে পদ্মা ব্যাংকের এমডি হিসেবে যোগদান করেন। এর আগে তিনি মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের ডিএমডি হিসেবে কর্মরত ছিলেন। পদ্মা ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের একটি পক্ষের সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় গতবছরের সেপ্টেম্বরে তারেক রিয়াজ এমডি পদ থেকে পদত্যাগ করেছিলেন। তবে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের হস্তক্ষেপে পরে আবার ব্যাংকে ফেরেন। এখন একীভূত হতে যাওয়া কোনো দুর্বল ব্যাংকের এমডি, ডিএমডি বিদ্যমান চাকরিতে থাকতে পারবেন না। এরকম অবস্থায় তিনি আবার পদত্যাগ করেছেন বলে জানা গেছে।

এদিকে গত মাসে অনিয়ম-জালিয়াতিতে সংকটে পড়া পদ্মা ব্যাংক (সাবেক ফারমার্স ব্যাংক) শ‌রীয়াহভি‌ত্তিক বেসরকারি এক্সিম ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত হওয়ার বিষয় ঘোষণা দেওয়া হয়। এটা একীভূত করা প্রথম সিদ্ধান্ত। এ প্রক্রিয়া এগিয়ে নিতে গত ২৫ মার্চ বেসরকারি খাতের এ দুই ব্যাংকের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি (এমওইউ) সই করে। এরপর বাংলাদেশ ব্যাংক এই দুটি ব্যাংকের নিরীক্ষার জন্য নিরীক্ষক নিয়োগ দিয়েছে।

এখন পর্যন্ত সরকারি-বেসরকারি মিলিয়ে ১০টি ব্যাংকের একীভূত করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এগুলো-এক্সিম ব্যাংকের সঙ্গে পদ্মা ব্যাংক, সিটি ব্যাংকের সঙ্গে সরকারি মালিকানাধীন বেসিক ব্যাংক, ইউসিবির সঙ্গে ন্যাশনাল ব্যাংক, সোনালী ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত হচ্ছে বিডিবিএল এবং বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংকের সঙ্গে যুক্ত হচ্ছে রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক (রাকাব)।

বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গত ৯ এপ্রিল জানানো হয়, বেসরকারি খাতের ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক পিএলসি (ইউসিবি) সঙ্গে একীভূত হচ্ছে সংকটে থাকা বেসরকারি ন্যাশনাল ব্যাংক। ওই দিন ইউসিবি ব্যাংকের একজন পরিচালক ও ব্যবস্থাপনা পরিচালককে ডেকে নিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকে বৈঠক করেন গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার। বৈঠকে ইউসিবির কর্তৃপক্ষকে একীভূত করার বিষয় উদ্যোগ নেওয়া কথা জানানো হয়। ওই বৈঠকে ন্যাশনাল ব্যাংকের কেউ উপস্থিত ছিলেন না। তার একদিন আগে ৮ এপ্রিল বেসরকারি সিটি ব্যাংকের সঙ্গে সরকারি মালিকানাধীন বেসিক ব্যাংককে একীভূত করার সিদ্ধান্ত হয়। ওই দিন সিটি ব্যাংকের চেয়ারম্যান ও এমডিকে ডেকে এ সিদ্ধান্তের কথা জানান গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার। ওই বৈঠকেও বেসিক ব্যাংকের কোনো প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন না। ন্যাশনাল ব্যাংক একীভূত করার বিষয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকেও ন্যাশনাল ব্যাংকের কোনো প্রতিনিধি ছিলেন না। গভর্নর এককভাবে এসব সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন বলে জানান সংশ্লিষ্টরা। এসব সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে বেসিকসহ কয়েকটি ব্যাংকের কর্মীরা বিরোধিতা করে অর্থ মন্ত্রণালয় ও কেন্দ্রীয় ব্যাংকে স্মারকলিপি দিয়েছেন।

Walton

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়