United Commercial Bank (UCB)

বৃহস্পতিবার

০৮ ডিসেম্বর ২০২২


২৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯,

১৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ইউক্রেনের চারটি ভূখণ্ডকে রাশিয়ায় যুক্ত করার ঘোষণা পুতিনের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক || বিজনেস ইনসাইডার

প্রকাশিত: ১৯:৫৪, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২   আপডেট: ১৯:৫৫, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২
ইউক্রেনের চারটি ভূখণ্ডকে রাশিয়ায় যুক্ত করার ঘোষণা পুতিনের

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা (৩০ সেপ্টেম্বর): ইউক্রেনের দখলকৃত চারটি ভূখণ্ডকে রাশিয়ায় যুক্ত করার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। আজ শুক্রবার ক্রেমলিনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে পুতিন এই ঘোষণা দেন। পুতিনের ঘোষণার ফলে ইউক্রেনের দখলকৃত খেরাসন, জাপোরিজ্জিয়া, ডনেস্ক ও লুহানস্ক অঞ্চলকে নিজেদের ভূখণ্ড বলে দাবি করবে রাশিয়া। খবর, বিবিসি’র।

এর আগে, সম্প্রতি ইউক্রেনে দখলকৃত চারটি এলাকায় কথিত গণভোট আয়োজন করেছে রাশিয়া। এই চারটি এলাকা ইউক্রেনের মোট আয়তনের ১৫ শতাংশ ভূখণ্ড। গণভোটে ৯৯ শতাংশ মানুষ রাশিয়ার সঙ্গে যুক্ত হওয়ার পক্ষে রায় দিয়েছেন বলে দাবি মস্কোর। তবে, ইউক্রেন, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় দেশগুলো এই গণভোটকে মস্কোর ‘সাজানো’ এবং অবৈধ বলে দাবি করেছে।

এদিকে, গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে রুশ অধিকৃত ইউক্রেনের খেরাসন এবং জাপোরিজ্জিয়া অঞ্চলকে ‘স্বাধীনতার’ স্বীকৃতি দিয়ে ডিক্রি জারি করেছেন পুতিন। আর ফেব্রুয়ারিতে ডনেস্ক ও লুহানস্ক অঞ্চলকে স্বাধীন হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছিলেন তিনি।

আজ শুক্রবার ভাষণে পুতিন ইউক্রেনে চলমান যুদ্ধে নিহত সেনাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এক মিনিট নীরবতা পালনের আহ্বান জানান। তিনি বলেন, বিশেষ সামরিক অভিযানে নিহত সেনারা রাশিয়ার বীর। তারা এই ভূখণ্ডের জন্য লড়াই করে মৃত্যুবরণ করেছে।

পুতিন বলেন, ইউক্রেনের চারটি অঞ্চল রাশিয়ায় যুক্ত হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আমি নিশ্চিত, কেন্দ্রীয় পরিষদ আমাদের নতুন চারটি এলাকাকে সমর্থন করবে। কারণ, এটি লাখো মানুষের ইচ্ছা।

তিনি জানান, তিনি চান কিয়েভ ও পশ্চিমারা জানুক- ডনবাস অঞ্চলের বাসিন্দারা রাশিয়ার নাগরিক হয়েছে। কিয়েভ কর্তৃপক্ষের উচিত জনগণের ইচ্ছাকে শ্রদ্ধার সঙ্গে সম্মান করা। তাঁর দাবি, এটিই শান্তির একমাত্র উপায়। যেকোনো উপায়ে রাশিয়া নিজেদের ভূখণ্ড রক্ষা করবে। ভূখণ্ডে বসবাসরত মানুষের জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে।

তিনি আরও বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত শহর ও গ্রামগুলো পুনর্নির্মাণ করবে রাশিয়া এবং অবকাঠামো উন্নয়ন, স্বাস্থ্যসেবা ও শিক্ষা প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে।

রুশ প্রেসিডেন্ট দাবি করেছেন, গণভোটে যারা ভোট দিয়েছেন, এই ফল তাদের প্রাকৃতিক অধিকার। এই ভূখণ্ডের জন্য রাশিয়ার কয়েকটি প্রজন্ম লড়াই করেছে। 

এর আগে ২০১৪ সালে ক্রিমিয়া দখল করে গণভোট দিয়ে সেই এলাকা রুশ ফেডারেশনের সঙ্গে যুক্ত করা হয়। এবার খেরাসন, জাপোরিঝঝিয়া, দোনেৎস্ক ও লুহানস্ক অঞ্চল রাশিয়ার নিয়ন্ত্রণে যাচ্ছে। এই ভূখণ্ডের আয়তন ৯০ হাজার বর্গকিলোমিটার, যা কিনা হাঙ্গেরি কিংবা পর্তুগালের মতো দেশের ভূখণ্ডের সমান। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর কোনো দেশ ইউরোপের কোনো দেশের এত বড় ভূখণ্ড জোর করে দখল করতে পারেনি।

উল্লেখ্য, ইউক্রেনের চারটি অঞ্চলকে আনুষ্ঠানিকভাবে রাশিয়ার সঙ্গে অন্তর্ভুক্তির চুক্তি সই উপলক্ষে রাশিয়াজুড়ে কঠোর নিরাপত্তা নেওয়া হয়েছিল। অনুষ্ঠানে ওই চারটি অঞ্চলের নেতারাও উপস্থিত ছিলেন।

Nagad

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়