United Commercial Bank (UCB)

রোববার

০৩ জুলাই ২০২২


১৯ আষাঢ় ১৪২৯,

০২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

নর্থ সাউথের ৪ ট্রাস্টির জামিন নামঞ্জুর, পুলিশে দিলেন হাইকোর্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক || বিজনেস ইনসাইডার

প্রকাশিত: ১৮:৩৫, ২২ মে ২০২২   আপডেট: ১৯:০৩, ২২ মে ২০২২
নর্থ সাউথের ৪ ট্রাস্টির জামিন নামঞ্জুর, পুলিশে দিলেন হাইকোর্ট

ফাইল ছবি

ঢাকা (২২ মে): নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের জমি কেনা সংক্রান্ত অর্থ আত্মসাতের মামলায় ট্রাস্টি বোর্ডের চার সদস্যের আগাম জামিন আবেদন সরাসরি খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। এদিকে, ওই চার আসামিকে হাইকোর্ট থেকে গ্রেফতার করে নিয়ে শাহবাগ থানা পুলিশকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাদের নিম্ন আদালতে হাজির করতে বলা হয়েছে।

আজ রবিবার বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কাজী মো. ইজারুল হক আকন্দের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। চার আসামি হলেন— বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য এমএ কাশেম, রেহানা রহমান, বেনজীর আহমেদ ও মোহাম্মদ শাহজাহান। 

এর আগে গত বুধবার আংশিক শুনানি শেষে বৃহস্পতিবার পরবর্তী শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু আসামিপক্ষের আইনজীবী মিজান সাঈদ সময়ের আবেদন করলে আজ রবিবার দিন ধার্য করেন আদালত।  

এ বিষয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)-এ অভিযোগকারী আইন ও মানবাধিকার সুরক্ষা ফাউন্ডেশনের উপদেষ্টা ড. সুফী সাগর সামস গণমাধ্যমকে জানান, আদালতের রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করছি। আসামিরা যেন কোনোমতেই প্রভাব খাটিয়ে বিচারের দীর্ঘসূত্রিতা কিংবা ফাঁক দিয়ে বেঁচে যেতে না পারে, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

তিনি আরও বলেন, মামলার অন্যতম আসামি আজিম উদ্দিন দেশে আছেন কি-না বিদেশে পালিয়ে গেছেন— তা নিয়ে জনমনে শঙ্কা তৈরি হয়েছে। এখন বিশ্ববিদ্যালয়কে বাঁচাতে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।

উল্লেখ্য, প্রায় ৩০৪ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে গত ৫ মে নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান আজিম উদ্দিন আহমেদসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক। অপর আসামিরা হলেন— বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস্য এমএ কাশেম, বেনজীর আহমেদ, রেহানা রহমান, মোহাম্মদ শাহজাহান ও আশালয় হাউজিং অ্যান্ড ডেভেলপার্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) আমিন মো. হিলালী।

ওই মামলায় নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাস ডেভেলপমেন্টের নামে ৯ হাজার ৯৬ দশমিক ৮৮ ডেসিমাল জমির ক্রয়মূল্য বাবদ ৩০৩ কোটি ৮২ লাখ ১৩ হাজার ৪৯৭ টাকা অতিরিক্ত অর্থ হস্তান্তর, রূপান্তর, স্থানান্তর ও গোপন করার মাধ্যমে আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে।  বিশ্ববিদ্যায়ের সিন্ডিকেট, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন, শিক্ষা মন্ত্রণালয় অর্থাৎ সরকারের সুপারিশ/অনুমোদনকে পাশ কাটিয়ে বোর্ড অব ট্রাস্টিজের কিছু সদস্যের অনুমোদনের মাধ্যমে এই অর্থ লোপাট করা হয়। 

এ ছাড়া নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব ট্রাস্টির সদস্যদের বিরুদ্ধে অনিয়ম-দুর্নীতির আরও অভিযোগ রয়েছে। সেসব অভিযোগেরও অনুসন্ধান চলছে। 

Nagad

সর্বশেষ

Islami Bank Bangladesh Ltd

পাঠকপ্রিয়